vic_logo
coronavirus.vic.gov.au

স্বাস্থ্য বিষয়ক পরামর্শ এবং বিধিনিষেধসমূহ (Health advice and restrictions) - বাংলা (Bengali)

কীভাবে ভাল থাকা যায়, পরীক্ষা করানো বিষয়ক এবং আপনার জন্য প্রাপ্য সহায়তা সম্পর্কিত তথ্যসহ স্বাস্থ্য বিষয়ক পরামর্শ এবং বিধিনিষেধের নতুন তথ্যাবলী ।

আপনি যদি উদ্বিগ্ন হোন , তবে coronavirus হটলাইনে 1800 675 398 নম্বরে কল করুন ( ২৪ ঘন্টা).
আপনার যদি একজন দোভাষীর প্রয়োজন হয় তবে TIS National -এ 131 450 নম্বরে ফোন করুন অনুগ্রহ করে তিনটি শূন্য (000) নম্বরটি শুধুমাত্র জরুরী অবস্থার জন্য রাখুন.

যা অবশ্যই মনে রাখবেন

করোনাভাইরাস (COVID-19) থেকে আমাদের পরিবার ও সম্প্রদায়কে নিরাপদ রাখতে আমরা কিছু গুরুত্বপূর্ণ কাজ করতে পারিঃ

  • আপনার হাতদুটি নিয়মিত ধুয়ে নিন। সাবান ও পানি (জল) ব্যবহার করুন এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজার সঙ্গে রাখুন। এটি করোনাভাইরাস (COVID-19), যা কিছু জিনিসের ওপরে কয়েকদিন পর্যন্ত সক্রিয় থাকতে পারে, তার থেকে আমাদের নিরাপদ রাখতে সাহায্য করে।
  • অন্যের থেকে ১.৫ মিটার দূরে থাকুন।
  • সব সময় একটি ফেইস মাস্ক অবশ্যই সঙ্গে রাখুন।
  • হাসপাতাল কিংবা কোন সেবাকেন্দ্র পরিদর্শনকালে, গণ পরিবহন, ট্যাক্সি বা রাইডশেয়ারে যাত্রাকালে এবং বিমানবন্দরে ও বিমানে ভ্রমণের সময়, অবশ্যই একটি ফেইস মাস্ক পড়বেন, (যদি সেটি না করার কোন বৈধ কারণ না থাকে)।
  • অন্যান্য পরিস্থিতিতে ফেইস মাস্ক পরতে জোরালো সুপারিশ করা হয় যখন আপনি অন্যের থেকে ১.৫ মিটারের দূরত্ব বজায় রাখতে পারেন না। এটি করোনাভাইরাস (COVID-19) বিস্তারের ঝুঁকি কমায়।
  • স্বজন ও বন্ধুদের সাথে ঘরে নয়, বরং বাইরে সাক্ষাৎ করুন। বাইরে আমাদের করোনাভাইরাসের (COVID-19) সংস্পর্শে আসার সম্ভাবনা অপেক্ষাকৃত কম থাকে।
  • যদি অসুস্থবোধ করপরীক্ষা করান (get tested) এবং বাড়িতে থাকুন। শীঘ্র পরীক্ষা করলে, এমনকি আপনার উপসর্গগুলি মৃদু হলেও, তা করোনাভাইরাসের (COVID-19) বিস্তারের গতি ধীরে করতে সাহায্য করে।
  • করোনাভাইরাসের (COVID-19) পরীক্ষা প্রত্যেকের জন্য বিনাখরচে করা হয়। তাদের মধ্যে রয়েছেন যাদের Medicare Card নেই, যেমন বিদেশ থেকে আগত পর্যটকরা, অভিবাসী কর্মিবৃন্দ, এবং যারা শরণার্থী তারাও ।


ভিক্টোরিয়ায় বর্তমানে কার্যকর নিয়ন্ত্রণবিধির বিভিন্ন পর্যায়

ভিক্টোরিয়ার বর্তমান নিয়ন্ত্রণবিধিসমূহ পড়ুন।

অবস্থার পরিবর্তন হলে Victorian Chief Health Officer নিয়ন্ত্রণ বিধিসমূহ পরিবর্তন করতে পারেন।

বর্তমান নিয়ন্ত্রণবিধিসমূ

এই সময় থেকেঃ

  • সর্বোচ্চ ২০০ জন আউটডোরে (ঘরের বাইরে) মিলিত হতে পারেন। সাক্ষাৎটি অবশ্যই বাইরে কোন জনসমাগমের স্থানে যেমন পার্কে বা বিচে (সমুদ্র তটে) হতে হবে – আপনার বাড়িতে, যেমন বাড়ির পেছনের আঙ্গিনায় ন
  • আপনার বাড়িতে প্রতিদিন সর্বোচ্চ ১০০ জন সাক্ষাৎপ্রার্থী আসতে পারেন। বেন।
  • ভিক্টোরিয়ার অভ্যন্তরে ছুটি কাটাতে গেলে আপনার পরিবারের সকল সদস্য সহ সর্বোচ্চ ১০০ জনের অবকাশের জন্য আবাসন সংরক্ষণ করতে পারেন। ঘনিষ্ট সঙ্গী এবং ১২ বছরের কম বয়সী শিশুরা ১০০ জনের সংখ্যায় গণ্য হবেন না।
  • কেশবিন্যাস, সৌন্দর্য ও ব্যক্তিগত পরিষেবার কর্মীগণ আপনার বাড়িতে আসতে পারবেন।
  • রেস্টুরেন্ট, পাব, বার, এবং ক্যাফেগুলি খোলা আছে। তাদেরকে অবশ্যই দুই বর্গমিটার নীতি (two square metre rule) মেনে ভিতরে ও বাইরে কাস্টমারদের (ক্রেতাদের) সংখ্যা সীমিত রাখতে হবে। দুই বর্গমিটার নীতি প্রয়োগ করার আগে সর্বোচ্চ ২৫ জন কাস্টমার (ক্রেতা) থাকতে পারবে।।
  • সীমিত সংখ্যক কাস্টমারের (গ্রাহকের) উপস্থিতিতে ক্যাসিনোগুলি খোলা আছে।
  • মঞ্চে শিল্পীদের সঙ্গীতানুষ্ঠান আয়োজন করা যাবে
  • ফুডকোর্টে খাবারের দোকানগুলি খোলা আছে।
  • ভিতরে বা বাইরে কন্ট্যাক্ট স্পোর্টস (স্পর্শযুক্ত ক্রীড়াদি) আয়োজনের অনুমতি আছে।
  • জিমসহ ঘরের অভ্যন্তরে ব্যায়াম শিক্ষার কেন্দ্রগুলি খোলা আছে। জিম এবং ঘরের অভ্যন্তরে ক্রীড়াদি অনুষ্ঠানের স্থানগুলিতে অবশ্যই (two square metre rule)দুই বর্গমিটার নীতি’র প্রয়োগ করতে হবে যাতে গ্রাহকের সংখ্যা সীমিত রাখা যায়। কর্মীবিহীন জিমগুলিতচার বর্গমিটার নীতি’র প্রয়োগ অবশ্যই করতে হবে।
  • পুল বা সাঁতার কাটার স্থানগুলি খোলা আছে। পুলগুলিতে অবশ্যই (two square metre rule)দুই বর্গমিটার নীতি’র প্রয়োগ করতে হবে যাতে গ্রাহকের সংখ্যা সীমিত রাখা যায়। হবে।
  • কাস্টমারের (দর্শকদের) সংখ্যা সীমিত রেখে সিনেমাগুলি খোলা আছে।
  • বিয়ের অনুষ্ঠানসমূহ আয়োজন করা যাবে। অনুষ্ঠানস্থলের আয়তন অনুযায়ী উপস্থিত অভ্যাগতের সংখ্যা নির্ধারণ করা যায়। অনুষ্ঠানস্থলে অবশ্যই two square metre (দুই বর্গমিটার নীতি’র) প্রয়োগ করতে হবে। যদি আপনার বাড়িতে বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন, তবে সর্বোচ্চ ১০০ জন অভ্যাগত যোগ দিতে পারতে পারেন।
  • অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা যাবে। অনুষ্ঠানস্থলের আয়তন অনুযায়ী কতজন ব্যক্তি উপস্থিত হতে পারবেন তা হিসাব করা যায়। অনুষ্ঠানস্থলে অবশ্যই two square metre rule (দুই বর্গমিটার) প্রয়োগ করতে হবে। বাড়িতে অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার আয়োজন করলে, সর্বোচ্চ ১০০ জন (শোকার্ত) অতিথি যোগ দিতে পারতে পারেন।
  • ধর্মীয় সমাবেশের অনুমতি আছে। দুই বর্গমিটার নীত’র (two square metre rule) প্রয়োগ ঘটিয়ে ধর্মীয় সমাবেশস্থলে উপস্থিত লোকের সংখ্যাসীমা নির্ধারণ করা যায়। প্রতি দলে বা গ্রুপে কতজন উপস্থিত থাকতে পারবেন তার কোন সংখ্যাসীমা নাই এবং ভিতরে ও বাইরে (ধর্মীয়) আচার, এবং প্রার্থনাকার্য একই সাথে অনুষ্ঠিত হতে ত হতে পারে।
  • লাইব্রেরী এবং নেইবারহূড হাউসসহ সামাজিক সমাবেশের স্থানগুলি (কমিউনিটি ভেন্যু) খোলা আছে। অনুষ্ঠানস্থলে উপস্থিত লোকের সংখ্যা সীমিত রাখতে অবশ্যই দুই বর্গমিটার নীতি’র (two square metre rule) প্রয়োগ ঘটাতে হবে।
  • ২৩শে এপ্রিলের মধ্যে সকল অনুষ্ঠানস্থলে বৈদ্যুতিন রেকর্ড সংরক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে।


ফেইস মাস্ক

বাড়ি থেকে বের হলে সব সময় আপনাকে অবশ্যই একটি ফেইস মাস্ক সঙ্গে রাখতে হবে এবং যখন প্রয়োজন হবে সেটি পরতে হবে, যদি না তা না করার কোন আইনসংগত কারণ থাকে। ফেইস মাস্ক না পড়ার আইনসংগত কারণের উদাহরণগুলির মধ্যে রয়েছেঃ

  • যদি আপনার কোন স্বাস্থ্যগত কারণ থাকে যেমন মারাত্মক কোন ত্বকের সমস্যা বা শ্বাস-প্রশ্বাস জনিত কোন সমস্যা
  • ব্যায়ামের সময় দম ফুরিয়ে গেলে।া।

১২ বছরের কমবয়সী শিশুদের ফেইসমাস্ক পড়ার প্রয়োজন নেই।

যদি না কোন আইনগত কারণ থাকে, আপনাকে অবশ্যই একটি ফেইসমাস্ক পড়তে হবে, যেমনঃ

  • গণ পরিবহনে ভ্রমণকালে
  • কোন হাসপাতাল বা সেবা কেন্দ্র পরিদর্শনকালে
  • ট্যাক্সি বা রাইডশেয়ারে যাত্রাকালে
  • বিমানবন্দরে ও বিমানে ভ্রমণের সময়

অন্যান্য পরিস্থিতিতে ফেইস মাস্ক পরতে জোরালো সুপারিশ করা হয় যখন আপনি অন্যের থেকে ১.৫ মিটারের দূরত্ব বজায় রাখতে পারেন না।

পরীক্ষা করানো ও নিভৃতবাস

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) এর কোন লক্ষ্মণ প্রকাশ পেলে, অবশ্যই পরীক্ষা করান এবং ফলাফল হাতে না আসা পর্যন্ত বাড়িতে থাকুন। (এ সময়ে) কাজে বা দোকানে যাবেন না।

করোনাভাইরাসের লক্ষণগুলির মধ্যে রয়েছেঃ

  • জ্বর, শীত শীত ভাব বা ঘাম হওয়া
  • কাশি বা গলাব্যাথা
  • শ্বাসকষ্ট
  • নাকে সর্দি
  • স্বাদ বা গন্ধের অনুভূতি হারানো

করোনাভাইরাসের পরীক্ষা সকলের জন্য বিনামূল্যে করা হয়। যাদের মেডিকেয়ার কার্ড নেই যেমন যারা বিদেশ থেকে বেড়াতে এসেছেন, অভিবাসী শ্রমিক বা শরণার্থীরাও এই সুবিধা পাবেন।

যদি আপনার করোনাভাইরাস রোগ সনাক্ত হয়, তবে অবশ্যই বাড়িতে স্বতন্ত্র ও সঙ্গনিরোধ ভাবে থাকুন। আরো তথ্যের জন্য পরিদর্শন করু- করোনভাইরাস সনাক্ত হলে কি করণীয়

যদি আপনি করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) এ আক্রান্ত কোন ব্যক্তির ঘনিষ্ট সংস্পর্শে আসেন তবে অবশ্যই আপনাকে ১৪ দিনের জন্য নিভৃতবাসে থাকতে হবে। আরো তথ্যের জন্য পরিদর্শন করুন -করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির ঘনিষ্ট সংস্পর্শে এলে কি করণীয়

যদি আপনি এমন কারো সাথে বাস করেন বা এমন কারো সাথে সময় কাটিয়েছেন যিনি COVID-19 এ আক্রান্ত কারো ঘনিষ্ট সংস্পর্শে ছিলেন, তাহলে আপনাকেও বাড়িতে থাকতে বলা হবে।

সহায়তা পাওয়া যাচ্ছে

যদি আপনার পরীক্ষার ফলাফলের জন্য অপেক্ষা কালে রোজগার হারানোর আশংকায় থাকেন, তবে আপনি $450 coronavirus (COVID-19) Test Isolation support' ভাতার জন্য যোগ্য হতে পারেন। এটা আপনাকে বাড়িতে থাকতে সাহায্য করবে।

যদি আপনার রোগ সনাক্ত হয় বা আক্রান্ত কারো ঘনিষ্ট সংস্পর্শে এসে থাকেন, তবে $১৫০০ সাহায্য ভাতা পেতে পারেন। আরো তথ্যের জন্য করোনাভাইরাসের এর হটলাইন 1800 675 398 নম্বরে কল করুন। যদি আপনার দোভাষীর প্রয়োজন হয় তবে শূন্য (০) নম্বরটি চাপুন।

যদি আপনি বা আপনার পরিচিত কেউ উদ্বেগ বা দুঃশ্চিন্তায় আক্রান্ত হন, তবে সাহায্যের জন্য – Lifeline এর 13 11 14 নম্বরে অথবা বিয়ন্ড ব্লুর এর 1800 512 348 নম্বরে কল করুন। যদি আপনার দোভাষীর প্রয়োজন হয় তবে প্রথমে 131 450 নম্বরে কল করুন।

আপনি যদি নিঃসঙ্গ বোধ করেন, Coronavirus Hotline এর 1800 675 398 নম্বরে কল করুন এবং তিন (3) চাপুন। ইন্টারপ্রিটার বা দোভাষীর প্রয়োজনে শূন্য (0) চাপুন। (তাহলে) Australian Red Cross এর একজন স্বেচ্ছাসেবী স্থানীয় সহায়তা প্রদানকারি সংস্থার সাথে আপনার সংযোগ ঘটাবেন।

তথ্যসূত্র

দয়া করে নীচের তথ্যগুলি ব্যবহার করুন এবং ইমেইল, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বা অন্যান্য কমিউনিটি নেটওয়ার্কের মাধ্যমে আপনার গোষ্ঠী সম্প্রদায়ের মধ্যে বিতরণ করু

পরীক্ষা করানো এবং নিভৃতবাস

নিরাপদে থাকা

সাহায্য পাওয়া

নাক-মুখের নিরাপত্তা আবরণী

Reviewed 30 March 2021

24/7 Coronavirus Hotline

If you suspect you may have coronavirus (COVID-19) call the dedicated hotline – open 24 hours, 7 days.

Please keep Triple Zero (000) for emergencies only.

Was this page helpful?